in

পর্যটকদের বাছাই করা ২০১৭ সালে সেরা কিছু শহরগুলো

ঘুরে বেড়াতে ভালোবাসে এমন মানুষগুলো সময় আর সুযোগ করতে পারলেই বেড়িয়ে পড়েন পথে প্রান্তরে। ঘুরে বেড়ান পৃথিবী জুড়ে ছড়িয়ে থাকা চমৎকার সব শহরে। আর সেই পর্যটকদের বাছাই করা ২০১৭ সালে সেরা কিছু শহরের তালিকা নিয়েই আজকের এই লেখা।

১. হংকং

২০১৭ সালের সারা বছরেই হংকং ছিলো পর্যটকের পদচারণায় মুখর। সারা বিশ্বের ২৫ মিলিয়ন পর্যটক পাড়ি দিয়েছেন হংকংয়ের সৌন্দর্য দেখার জন্য। সুউচ্চ অট্টালিকার এই শহরে এসে পর্যটকেরা যেন ভিড়ে হারিয়ে যেতেই ভালোবাসেন। শপিং মলের লাল নীল আলো কিংবা রাস্তার পাশের রাত জাগা বাজারগুলো পর্যটকদের দু’হাত বাড়িয়ে ডাকে।

আলোক ঝলমলে হংকং; ছবিসূত্রঃ www.richmond.edu

২. ব্যাংকক

ব্যাংকক, দ্রুতগতিতে পর্যটন শিল্পের বিকাশ হওয়া আরেক শহর। ২৩ মিলিয়ন পর্যটক ব্যাংককে ভিড় জমিয়েছে এই শহরকে উপভোগ করার জন্যে। শহরকে আষ্টেপৃষ্টে জড়িয়ে রাখা খালগুলোতে দেখা যায় ‘বর্ণাঢ্য ভাসমান বাজার’। এই বাজারগুলো গত কয়েকবছর ধরে পরিণত হয়েছে ব্যাংককের অন্যতম প্রধান পর্যটক গন্তব্যে। পাশাপাশি থাইল্যান্ডের স্ট্রিট ফুডের সুনাম রয়েছে সারা বিশ্বজুড়ে। তাই সারা বিশ্বের খাদ্যপ্রেমীরাও যোগ হয়েছেন পর্যটকের তালিকায়।

ব্যাংককের ভাসমান বাজারের একটি খাবারের দোকান; ছবিসূত্রঃ www.businessinsider.com

৩. লন্ডন

বিগ বেন, ওয়েস্ট মিনিস্টার এবে কিংবা টাওয়ার ব্রিজের শহর লন্ডনে গতবছর পাড়ি জমিয়েছেন ১৯ মিলিয়ন পর্যটক। ইতিহাস আর ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ এই শহরের মিউজিয়ামগুলো বছরজুড়েই পর্যটকদের পদচারণায় ভারী থাকে। পাশাপাশি বিখ্যাত সব পার্ক আর স্থাপত্যের পাশাপাশি লন্ডন ঘুরতে আসা পর্যটকেরা টেমস নদীর পারে দাঁড়িয়ে থাকা ‘লন্ডন আই’ থেকে পুরো শহরকে একবার দেখে নিতেও ভুল করেন না।

ইতিহাস আর ঐতিহ্যের সাথে আধুনিকতার মিশেলে গড়ে উঠেছে লন্ডন; ছবিসূত্রঃ www.timeout.com

৪. দুবাই

বুর্জ খালিফা থেকে বুর্জ আল আরবের মতো দৃষ্টিনন্দন আর বিলাসবহুল সব স্থাপনার কারণেই দুবাইয়ের পরিণত হচ্ছে পর্যটকদের নতুন গন্তব্যে। ২০১৭ সালে প্রায় ১৬ মিলিয়ন পর্যটকের পদচারণায় মুখর ছিলো এই নগরী। নাগরিক ব্যস্ততা থেকে অবসর নিয়ে ছুটির দিনগুলোকে বিলাসবহুলভাবে কাটাতেই ইউরোপ আর আমেরিকার ধনকুবেররা পাড়ি জমাচ্ছেন দুবাইতে।

দুবাই পরিণত হয়েছে বিলাসবহুল পর্যটনকেন্দ্রে; ছবিসূত্রঃ www.businessinsider.com

৫. প্যারিস

পর্যটক গন্তব্য হিসেবে পিছিয়ে নেই ইউরোপের আলোকিত নগরী প্যারিস। আইফেল টাওয়ার, ল্যুভর মিউজিয়ামের সৌন্দর্য উপভোগ করতে সারা পৃথিবী থেকে প্রায় ১৪ মিলিয়ন পর্যটক ছুটে আসেন। এদের কাউকেই নিরাশ করে না প্যারিস। বরং অপার সৌন্দর্যের এই লীলাভূমিতে দিন কাটানোর পর বাড়ি ফিরতেই মন চায় না পর্যটকদের।

ইউরোপের আলোকিত নগরী প্যারিসেও আছে পর্যটকের ঢল; ছবিসূত্রঃ www.businessinsider.com

৬. নিউ ইয়র্ক

আমেরিকার বৃহত্তম শহরে বছরজুড়েই থাকে পর্যটকের আনাগোনা। ইতিহাস আর ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ এই শহরের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে বিমোহিত হোন অনেকেই। পাশাপাশি সাজানো গোছানো এই শহরের অন্যতম আকর্ষণের মধ্যে রয়েছে ‘আমেরিকান মিউজিয়াম অফ ন্যাচারাল হিস্ট্রি’।

নিউ ইয়র্কের আলোক ঝলমলে রাস্তা; ছবিসূত্রঃ www.businessinsider.com

৭. কুয়ালালামপুর

কুয়ালালামপুরের আকাশ জুড়ে দেখা যায় পেট্রোনাস টুইন টাওয়ারের মতো আকাশচুম্বী অট্টালিকা দেখা যায়। কিন্তু এই ইট পাথরের অট্টালিকাই কিন্তু পর্যটক আকর্ষণের একমাত্র কেন্দ্র নয়। কুয়ালালামপুরের প্রাচীন নিদর্শনগুলো দেখতেও বিপুল পরিমাণ পর্যটক পাড়ি জমান এই শহরে। ২০১৭ সালের হিসাব অনুযায়ী কম করে হলেও ১২ মিলিয়ন পর্যটকের পদচারণায় মুখরিত হয়েছে এই নগরী।

কুয়ালালামপুরের অন্যতম পর্যটক আকর্ষণ এই ঐতিহ্যবাহী স্থাপনাগুলো; ছবিসূত্রঃ www.businessinsider.com

৮. রোম

রোম, পৃথিবীর সবচেয়ে ইতিহাস আর ঐতিহ্যসমৃদ্ধ শহর হিসেবেই পরিচিত। রোমান কলোসিয়াম থেকে শুরু করে সেইন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকা, সবই যেন হাতছানি দিয়ে ডাকে ভ্রমণপিপাসুদের। আর সেই ডাকে সাড়া দিয়ে ২০১৭ সালে এই শহরে পাড়ি জমিয়েছেন প্রায় ৯ মিলিয়ন পর্যটক। সাজানো গোছানো এই শহর দেখে প্রথম দৃষ্টিতে শিল্পীর তুলিতে আকা কোনো কল্পনার নগরী বলেই মনে হয়।

রোমের রাস্তায় রাস্তায় ইতিহাস আর ঐতিহ্য; ছবিসূত্র: www.businessinsider.com

৯. টোকিও

বছরজুড়ে গড়ে প্রায় ৯ মিলিয়ন পর্যটকের পদচারণায় মুখরিত থাকে জাপানের রাজধানী টোকিও। শুধু আকাশচুম্বী অট্টালিকাই নয় ইতিহাস ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ এই শহরে আছে দর্শনীয় জাদুঘর। বেড়াতে আসা পর্যটকদের অনেকেই টোকিওর বিখ্যাত সব শপিং মলে আর ইলেক্ট্রনিকস সামগ্রীর দোকানেও এক আধটু সময় কাটিয়ে যান কেনাকাটার স্বার্থে। পাশাপাশি দ্রুতগতির রেলওয়ে সুবিধার পাশাপাশি আধুনিক যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে শহরের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ঘুরে বেড়ানো যায় খুব সহজেই। তাই প্রতিবছর এই শহর হয়ে উঠছে পর্যটক মহলের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু।

টোকিও আকাশচুম্বী অট্টালিকার দল;ছবিসূত্র:tripadvisor.com

১০. তাইপে

তাইওয়ানের প্রধানতম এই শহর বিখ্যাত তার রাত্রিকালীন বাজারগুলোর জন্য। দিনরাত ২৪ ঘন্টাই জীবন্ত আলোক ঝলমলে এই শহরকে রাতেই বেশি পছন্দ পর্যটকদের। তবে এই শহরের অন্যতম প্রধান আকর্ষণ তাইপের সবচেয়ে উঁচু ১০১ তলা ভবনে অবস্থিত পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র থেকে পুরো শহর দেখা। পাশাপাশি এই শহরে এসে ঐতিহ্যবাহী স্ট্রিট ফুটের কথা ভুলে গেলে মোটেই চলবে না।

তাইপের আলোক ঝলমলে রাত; ছবিসূত্র: tripadvisor.com

১১. ইস্তাম্বুল

ইউরোপ আর এশিয়ার সংযোগস্থলে অবস্থিত ইস্তাম্বুল শহর ইউরোপের অন্যতম সেরা পর্যটক গন্তব্য। ইস্তাম্বুল শহর দুনিয়াজোড়া খ্যাতি পেয়েছে তার প্রাচীন স্থাপত্যকলার কল্যাণে। হাজিয়া সোফিয়া বাইজেন্টাইন আমলে নির্মিত এই মসজিদ এই শহরের অন্যতম প্রধান পর্যটন আকর্ষণ। এছাড়াও এই শহরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে বাইজেন্টাইন আমলে নির্মিত আরো অনেক দর্শনীয় স্থাপত্যকর্ম।

রাতের হাজিয়া সোফিয়া; ছবিসূত্র: flickr.com

ইস্তাম্বুলের নকশাকৃত কার্পেটের রয়েছে বিশ্বব্যাপী খ্যাতি। তাই এই শহরে বেড়াতে এসে বিখ্যাত সব কার্পেটের দোকানে ঢুঁ মারা পর্যটকদের কাছে নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি প্রতিবছর পৃথিবীর নানাপ্রান্ত থেকে ছুটে আসা প্রায় সাড়ে আট মিলিয়ন পর্যটকের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য থাকে মিনার আর গম্বুজে ঢাকা ইস্তাম্বুল শহরের রাতের দৃশ্যাবলী।

ফিচার ইমেজ: flickr.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *